নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রদলের কমিটিতে স্থান পাচ্ছে বিতর্কিতরা ! | DailyNatunDiganto.Com
মূলপাতা / Uncategorized / নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রদলের কমিটিতে স্থান পাচ্ছে বিতর্কিতরা !

JTV

নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রদলের কমিটিতে স্থান পাচ্ছে বিতর্কিতরা !

১ এপ্রিল, ২০২১, ১০:২০

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কে সাংগঠনিক ভাবে শক্তিশালী করতে তৃণমূল পর্যায় থেকে কমিটি পূর্ণগঠন কার্যক্রম শুরু করেছেন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাংগঠনিক অভিভাবক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

জেলা থেকে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটিতে যাতে রাজপথের সক্রিয় এবং মেধাবী ছাত্রনেতাদের মূল্যায়ন হয় সেজন্য বিভাগীয় সাংগঠনিক টিম গঠন করেছেন তারেক রহমান। ইতিমধ্যে দেশের অধিকাংশ উপজেলা, পৌরসভা ও কলেজের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে, সেক্ষেত্রে কুমিল্লা বিভাগীয় সাংগঠনিক টিমের কার্যক্রম কিছুটা ধীরগতিতে সম্পূর্ণ হচ্ছে। তার ধারাবাহিকতায় নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠন কার্যক্রম শুরু করেছেন কেন্দ্রীয় কুমিল্লা বিভাগীয় সাংগঠনিক টিম। নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রদলের কমিটিতে আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব প্রার্থী হিসাবে যারা আলোচিত আছেন তাদের মধ্যে কয়েকজন ভুয়া মামলার জালিয়াত, মাদকাসক্ত, এবং শিবির ও ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক পদপ্রার্থী হিসাবে আব্দুল মমিন ৫বছর দুবাই প্রবাসী থেকে ২০১৯ সালে দেশে এসে নজির-নয়ন গ্রুপের সাথে রাজনীতিতে জড়িত হয়। তার নামে রাজনৈতিক কোন মামলা নেই কিন্তু ছাত্রদলের সদস্য ফরমে সে ২টি ভুয়া মামলার কপি তৈরি করে জমা দিয়েছে, তাছাড়া তার শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে এলাকায় কানাঘুষা শুনা যাচ্ছে, জানা গেছে সে অনার্স শেষ করতে পারেনি। এছাড়া তার বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের কয়েকজন ছাত্রনেতার বিরুদ্ধে অশ্লীল অপপ্রচারের অভিযোগ আছে।

উপজেলা ছাত্রদলের অন্যতম আহ্বায়ক পদপ্রার্থী সাদ্দাম হোসেন বৃহত্তর আদ্রা ইউনিয়ন ছাত্রশিবিরের সভাপতি ছিলো দীর্ঘদিন, তার নামে শিবিরের মামলা আছে। উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব প্রার্থী বাবলু মজুমদারের মাদক সেবনের ছবি নিয়ে উপজেলায় ব্যপক আলোচনা চলছে। এতে নেতাকর্মীদের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। জানা যায় সে নিয়মিত গাজাঁ সেবনের পার্টি বসায়। এছাড়া আহ্বায়ক পদপ্রার্থী কামরুজ্জামান ইতিপূর্বে নাঙ্গলকোট উপজেলা যুবলীগ সভাপতির হাতে ফুল দিয়ে নাঙ্গলকোট হাসান মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি সোহাগের সাথে ছাত্রলীগে যোগদান করে। এছাড়া আহ্বায়ক পদপ্রার্থী শহিদুল ইসলামের নামে রাজনৈতিক কোন মামলা নেই ব্যক্তিগত একটি মামলা ছাড়া কিন্তু সদস্য ফরমে রাজনৈতিক মামলার ভূয়া কপি জমা দিয়েছে জানা গিয়েছে। এই প্রসঙ্গে নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি এস এম নাছির বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এইসব দেখে খুব কষ্ট পাই। আমাদের দলে শত শত যোগ্য ছাত্রনেতা থাকতে অযোগ্য ও বিতর্কিতরা উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব পদ পাচ্ছে জেনে। এটা আমাদের জন্য চরম লজ্জার। আমরা সাবেক ছাত্রনেতারা কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক টিমের নিকট প্রত্যাশা করবো যোগ্য ও বিগত সময়ের রাজপথের মেধাবী ছাত্রনেতাদের নিয়ে কমিটি পূর্ণগঠন হোক। আমি বিশ্বাস করি, টাকার কাছে দেশনায়ক তারেক রহমানের স্বপ্ন বিক্রি করবেন না বিভাগীয় সাংগঠনিক টিম ।

নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রদলের কমিটিতে বিতর্কিতদের স্থান পাওয়ার বিষয়ে উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও আহ্বায়ক মনির বলেন, আমি বিশ্বাস করি এইসব বিতর্কিতরা আমাদের প্রাণের সংগঠন ছাত্রদলে স্থান পাবেন না। এই প্রসঙ্গে জানতে বিভাগের সাংগঠনিক টিমের সদস্য শাহ নওয়াজ কে ফোন দিলে, তিনি বলেন এই বিষয়ে আমি কোন মন্তব্য করবো না।

For Advertisement

01672575878

দৈনিক নতুন দিগন্ত প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত:

error: Content is protected !!