বরিশাল সদর হাসপাতাল রেখে প্রাইভেট রোগী নিয়ে বেশি ব্যাস্ত থাকেন ডা: তানিয়া | DailyNatunDiganto.Com
মূলপাতা / এক্সক্লুসিভ / বরিশাল সদর হাসপাতাল রেখে প্রাইভেট রোগী নিয়ে বেশি ব্যাস্ত থাকেন ডা: তানিয়া

নতুন দিগন্ত ডেস্ক

Site Administrator

বরিশাল সদর হাসপাতাল রেখে প্রাইভেট রোগী নিয়ে বেশি ব্যাস্ত থাকেন ডা: তানিয়া

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ২:১৫

 

 

ইমরান হোসেন:- বরিশাল থেকে-

ডাক্তার তানিয়া আফরোজ, তিনি বরিশাল সদর জেনারেল হাসপাতালের সরকারি চিকিৎসক হলেও টাকার পাহাড় গড়ার লক্ষে নিজেকে সবসময় যেন প্রাইভেট হাসপাতাল নিয়ে বেশি ব্যাস্ত রাখেন। দৃর্ঘ প্রায় ১ মাস অনুসন্ধানীতে বেরিয়ে এসেছে আরো চাঞ্চল্যকর তথ্য। অভিযোগ রয়েছে চলতি বছরের মার্চ মাসে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক রোগী (গর্ভবতী) চিকিৎসা নিতে বরিশাল সদর হাসপাতালে আসলে তার চিকিৎসা বাবদ প্রায় ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে সেই রোগীর সিজারের সময় হলে সদর হাসপাতালের পরিবর্তে রোগীকে তার প্রাইভেট হসপিটালে নিয়ে আসতে বলেন। তবে রোগীর পরিবার তাতে অস্বিকৃতি জানালে তিনি সরাসরি জানিয়ে দেন আমি আপনাদের এই রোগীর চিকিৎসা করতে পারবোনা। অন্য কোথাও নিয়ে তার চিকিৎসা করান। এমন ঘটনা যেন ১টি ২টি নয়, প্রতিনয়ত ডা: তানিয়া আফরোজ ঘটিয়ে থাকেন। তবে তিনি রোগী থেকে শুরু করে সবার কাছে নিজেকে সরকার দলীয় কোন একটি পরিবারের সন্তান হিসেবে পরিচয় দিয়ে দাপটের সাথে বিভিন্ন অবৈধ সুবিদা নেওয়ার চেস্টা করেন। অভিযোগ রয়েছে বরিশাল সদর জেনারেল হাসপাতালের আয়া-ভুয়া থেকে শুরু করে প্রায় সকর চিকিৎসকরা তার ভয়ে থাকেন। এদিকে একটি সুত্রের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী জানাযায়- ডা: তানিয়া আফরোজের সাথে বরিশালের বেশ কয়েকটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিকের সাথে রয়েছে শু সম্পর্ক। যার ফলে বরিশাল সদর জেনারেল হাসপাতালের রোগীকে পাঠানো হয় তানিয়া আফরোজের প্রাইভেট হাসপাতালে। সম্প্রতি বরিশাল সদর জেনারেল হাসপাতালে নগরীর স্ব-রোডের বাসীন্দা লিলি বেগম নামে এক প্রসুতি নারী সিজারের জন্য হাসপাতালে ভর্তী হন। পর দিন ২৮ আগষ্ট সকালে ডা: তানিয়া আফরোজ ও রেহেনা ফেরদাউস প্রসুতি রোগী লিলি বেগমের সিজার অপারেশন করলে রোগীর একটি ছেলে সন্তান জন্ম গ্রহন করে। কিন্তু সিজার অপারেশন শেষে রোগী সিজার করা স্থানে কোন রকম পরিস্কার না করেই ওই স্থানে সেলাই করে দেয় ডাক্তার নামক কশাই তানিয়া আক্তার। লিলি বেগমের স্বামী আরো জানান সিজারের ২ দিন পরেই লিলি বেগমের সিজারের ওই স্থানে প্রচন্ড রকমের ব্যাথা শুরু করে। পরে ডা: তানিয়া ও রেহেনা ফেরদৌসিকে রোগীর অবস্থা বেগতিক জানালে ভিবিন্ন ধরনের পরীক্ষা করার পরামর্শ দেন। পরীক্ষা শেষে ভিবিন্ন ধরনের ঔষধ খাওয়ার কথা বলেন। কিন্তু এতেও রোগী কোন ভালো ফলাফল না পাওয়ায় গত ৭ই সেপ্টেম্বর সদর জেনারেল হাসপাতাল থেকে রোগীকে তার পরিবার ডা: আরিফ মেমোরিয়াল হসপিটালে লি: এ ভর্তী করেন। গত ৯ সেপ্টেম্বর ড. নজরুল ইসলাম লিলি বেগমের সিজার করা ঐ স্থানে অপারেশন করে ডা: তানিয়া আফরোজের ভুল চিকিৎসার কারনে জমে থাকা পয়জন বের করলে রোগী কিছুটা সুস্থ হয়। জা নিয়ে দৈনিক বিভিন্ন মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশিত হলে গোমড় ফাঁস হতে শুরু করে ডা: তানিয়া আফরোজের। এ দিকে অভিযোগের বিষয় নিয়ে বরিশাল সদর হাসপাতালের দ্বায়িত্বরত চিকিৎসক ডা: মো: দেলোয়ার হোসেন’য়ের সাথা কথা বললে তিনি জানান- চিকিৎসা নিয়ে যদি কেউ অবহেলা করে, তাহলে তাকে ছাড় দেওয়া হবেনা। আমি তানিয়া আফরোজের ব্যাপারো তদন্ত পূর্বক ব্যাবস্থা নেব। এদিকে অভিযোগের ব্যাপারে ডা: তানিয়া আফরোজের মোবাইলে একাদিক বার ফোন করা হলেও রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

(প্রতিবেদন চলমান-০২ পর্ব) আসছে- ৩য় পর্ব

For Advertisement

01672575878

দৈনিক নতুন দিগন্ত প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত:

error: Content is protected !!