সামাজিক ব্যবসায় তরুণ উদ্যোক্তা সৃস্টিতে ইউডা'র সেমিনার ২২ ডিসেম্বর | DailyNatunDiganto.Com
মূলপাতা / ফিচার / সামাজিক ব্যবসায় তরুণ উদ্যোক্তা সৃস্টিতে ইউডা’র সেমিনার ২২ ডিসেম্বর

নতুন দিগন্ত ডেস্ক

Site Administrator

সামাজিক ব্যবসায় তরুণ উদ্যোক্তা সৃস্টিতে ইউডা’র সেমিনার ২২ ডিসেম্বর

২০ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১১:৩৬

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে সরকারী-বেসরকারী চাকুরি যেন সোনার হরিণ। সরকারী চাকুরীর পাশাপাশি বেসরকারী চাকুরীতে ও হন্যে হয়ে খুঁজছেন মেধাবী ও উদ্যোমী তরুণরা। আবার সরকারী চাকুরিতে কোটা পদ্ধতি থাকার কারণে চাকুরি জীবন থেকে অকালেই ঝড়ে যাচ্ছে বেকার এই তরুণরা। উচ্চ শিক্ষিত হয়েও কাঙ্খিত চাকরি না পাওয়ায় বাবা-মায়ের কাছেও দিনকে দিন ওঠে বোঝা হয়ে উঠছে হতাশাগ্রস্থ সন্তানরা। এ এক অবিশ্বাস্য যন্ত্রণা। মুখ লুকিয়ে চলা। আর চাকরির ক্ষেত্রে বাড়তি যোগ্যতা হিসেবে প্রয়োজন হচ্ছে মামা-চাচার সুপারিশের। চাকরির বাজারে ঘুষের মূল্য হচ্ছে চড়া। দিন দিন শিক্ষিত বেকার সংখ্যা বাড়লেও চাহিদা অনুযায়ী বাড়ছে না কর্মসংস্থান। সরকারী-বেসরকারীর কোন কোন চাকরির একটি পদের পিছনে কমপেক্ষ ২০ হাজারেও বেশী প্রার্থী প্রতিযোগীতা করে। আবার দেশের নামী-দামী বেসরকারী প্রতিষ্ঠান,ব্যক্তিগত কোম্পানী,জিও-এনজিও সংস্থায় চাকুরি যুদ্ধে টিকে গেলেও শিক্ষা অনুযায়ী পদ, দক্ষতা অনুযায়ী বেতন আর অভিজ্ঞতা অনুযায়ী পদোন্নতি মেলে না কিছ কিছু কর্মকর্তা-কর্মচারীর খামখেয়ালীপনার কারণে। চাকুরির খবর পত্রিকা পড়তে পড়তে আর কম্পিউটারের দোকানে যেতে যেতে সরকারী-বেসরকারী চাকুরির বয়সসীমা কবে যে হারিয়ে ফেলছে তাই হুশ নেই অনেকের। পরিবারের মুল উর্পাজন থেকে চাকরীর আবেদন খরচ পেতেও লজ্জা আর বঞ্চিত হচ্ছে ভদ্র মেধাবী সন্তানরা। সরকারী- বেসরকারী চাকুরি আশা ছেড়ে অনেকইে ঝুকছে অসামাজিক কার্যকলাপে। ইউডা রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. ইফ্ফাত চৌধুরী এবং প্রক্টর ও সহযোগী অধ্যাপক তপন কুমার বিশ্বাস বলেন, এসব কথা চিন্তা করেই, এই হতাশাগ্রস্থ মেধাবী উদ্যোমী তরুণদের কে আত্মপ্রত্যয়ী, আত্মনির্ভরশীল মানবসম্পদে তৈরি করার জন্য ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ বিভিন্ন নানামূখী কৌশল গ্রহণ করছে।

ইউডা মাস্টার্স প্রোগ্রাম পরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ আব্দুল্লাহ সেলিম মনে করেন, মেধাবী উদ্যোমী তরুণরা সরকারী-বেসরকারী চাকুরির পেছনে হন্যে হয়ে না খুঁজে নিজেরাই হতে পারে স্বাবলম্বী। সৃস্টি করতে হবে নিজেদের মধ্যে উদ্যোক্তার মনোভাব, শুরু করতে হবে সামাজিক ব্যবসা। এই সামাজিক ব্যবসা ধারা অব্যহত থাকলে বাংলাদেশে শ্রীর্ঘই জনসম্পদ থেকে মানবসম্পদে রূপান্তিত হবে।

ইউডা ফ্যাকাল্টি অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশনের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল্লাহ-হিল-মুনতাকিম জানান,‘‘বাংলাদেশে সামাজিক যোগাযোগ উদ্দোক্তাদের ভবিষ্যত উজ্বল। সামাজিক উদ্দোক্তা তৈরির ক্ষেত্রে তরুণ ও নারীরা মূখ্য ভূমিকা পালন করছে। সম্প্রতি প্রকাশিত‘‘ স্টেট অব সোশ্যাল এন্টারপ্রাইজ সার্ভে’তে এ বিষয়টি উঠে এসেছে। সেই সঙ্গে দেশব্যপী উদ্দোক্তা তৈরীতে বিভিন্ন ধরণের প্রতিবন্ধকতা দূরীকরণে কি কি পদক্ষেপ নেয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ তাও স্থান পেয়েছে এ সমীক্ষায়।

উদ্যোক্তা তৈরীর ক্ষেত্রে কয়েকটি গুরুত্বাপূর্ণ বিষয় জানতে হবে : সামাজিক উদ্যোক্তা হওয়ার ক্ষেত্রে গতানুগতিক উদ্যোক্তাদের চেয়ে তরুণ ও নারীরা মুখ্য ভূমিকা পালন করে। সমাজের সদস্যদের জীবন ধারায় পরিবর্তন এনে দেওয়ার আনন্দ উপভোগ করতে শুধু অনুদান খাতের টাকাই নয় রবং অনেকেই সামাজিক ব্যবসায়ের বিনিয়োগকারীরা শুধু টাকাই বিনিয়োগ করেন না, তাদের সৃষ্টিশীলতা, যোগাযোগের দক্ষতা, প্রযুক্তিগত মেধা, জীবনের অভিজ্ঞতা সহ অনেক কিছুই বিনিয়োগ করে পৃথিবীটাকে বদলে দিতে। সামাজিক ব্যবসা সামাজিক পরিবর্তনের এজেন্ট হিসেবে কাজ করে। অপরের জন্য সুযোগ সৃষ্টি করে এবং সিস্টেমের উন্নতি সাধন করে। নতুন পন্থা উদ্ভাবন করে এবং সমাধান করার চেষ্টা করাই সামাজিক ব্যবসার কাজ। সামাজিক ব্যবসার উদ্দোক্তাগণ সম্পূর্নরূপে নতুন একটি সামাজিক শিল্প তৈরী করেন এবং তারা সামাজিক সমস্যার নতুন সমাধান নিয়ে আসেন ও বড় পরিসরে কাজ করার চেষ্টা করেন। ’ সহকারী অধ্যাপক আব্দুল্লাহ-হিল-মুনতাকিম মনে করেন, ‘‘ সামাজিক ব্যবসার মূলনীতি হওয়া উচিত সমাজবান্ধব। দারিদ্র্য বিমোচন সহ এক বা একাধিক বিষয় সমাধানের লক্ষে প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিগত মুনাফাহীন কল্যাণকর ব্যবসা এটি। সকলের অর্থনৈতিক সক্ষমতা অর্জন করাই এ ব্যবসার লক্ষ্য। সামাজিক ব্যবসায় বিনিয়োগকারীরা শুধু তাদের বিনিয়োগকৃত অর্থই ফেরত পাবে, এর বাইরে কোনো প্রকার লভ্যাংশ নিতে পারবে না। বিনিয়োগকারী তার বিনিয়োগকৃত অর্থ ফেরত নেয়ার পর বিনিয়োগকৃত অর্থের মুনাফা কোম্পানীর সম্প্রসারণ কাজে ব্যবহৃত হবে।’

সহকারী অধ্যাপক আব্দুল্লাহ-হিল-মুনতাকিম আরো বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে চলমান বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকট বিশ্ব অর্থনৈতিক পদ্ধতির কিংবা ঋণবাজার ব্যবস্থাপনার অন্তর্নিহিত দুর্বলতাগুলো চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে। পরিণতিতে উন্নত বিশ্ব ও উন্নয়নশীল দেশগুলো অর্থনৈতিক সংকটের গভীর গহ্বরে পড়ে গেল। এখন চলমান অনেক সামাজিক সমস্যার অন্তর্নিহিত কারণ মূলত পুঁজিবাদের অথবা সনাতন ব্যবসার ভুল প্রচলনেরই ফসল। সামাজিক ব্যবসার সঙ্গে এই সনাতন ব্যবসার পার্থক্য কেবল লক্ষ্য অর্জনের জন্য। পুঁজীবাদের কট্টর অনুসারীদের কাছে এটা রীতিমতো অবমাননাকর মনে হতে পারে। মুনাফা ছাড়া ব্যবসা- এ ধারনাটা পুঁজিবাদের তত্ত্বে নেই।

সুতরাং বর্তমান বিশ্বের সকল মানুষের মানবিক দিক বিবেচনায় নিয়ে ব্যবসা করা পুঁজীবাদীদের পক্ষে একবারেই অসম্ভব বলা চলা। তবে পুঁজীবাদী উদ্যোক্তাদের অনেকেই বর্তমানে সামাজিক দায়িত্বপালন কল্পে কিছু উদ্যোগ গ্রহন করেছে যা খুবই অপ্রতুল। অথচ মানবিকতা ও ব্যবসা যদি এক সাথে না চলে তাহলে সেটি মানুষের কোন মঙ্গলে বয়ে আনবে না। পুঁজিবাদীরা কখনই মানুষের মনের যে সৃষ্টিশীলতা ও বহুমুভিতা আছে সেটি নিয়ে ভাবেই না। অথচ মানবমনের সত্যিকারের বহুমুখীতাকে আমাদের উপলব্ধি করা একান্ত দরকার। আর এটা করতে হলে আমাদের প্রয়োজন নতুন ধরনের এক ব্যবসা যা ব্যক্তিগত গোলক ধাধা ছেড়ে আরো বৃহত্তর লক্ষে মনোনিবেশ করে। সঠিক কনসেপচুয়াল ও ইনস্টিটিউশনাল ফ্রেমওয়ার্ক তৈরি করা এটা হবে এমন এক ব্যবসা, যা সর্বাত্মক ভাবে সমাজ ও পরিবেশের সমস্যার সমাধানে নিয়োজিত থাকবে। সামাজিক ব্যবসা তাই এমন একটা কোম্পানী যা মুনাফা তাড়িত নয়, বরং মানব কল্যাণ তাড়িত, আর তার পেছনে থাকে দুনিয়া বদলানোর কাজে ভূমিকা পালনের একটা অদম্য স্পৃহা। ’

সহকারী অধ্যাপক আব্দুল্লাহ-হিল-মুনতাকিম আরো জানান, কুয়ালালামপুরে অনষ্ঠিত পঞ্চম বিশ্ব সামাজিক ব্যবসার শীর্ষ সম্মেলনে পৃথিবীর ৫০টি দেশ থেকে প্রায় ৮০০ প্রতিনিধি অংশ নেন। এখন বাংলাদেশের গন্ডি পেরিয়ে কোস্টারিকা, কলম্বিয়া, ভারত, যুক্তরাজ্য, জাপান, চীন ও জার্মানিতেও গড়ে উঠছে এই সামাজিক ব্যবসা।

ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ (ইউডা) এর মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা বিভাগের এমবিএ ৪৪ এর মনিটর আরিফা জামান জানান, সামাজিক ব্যবসায় তরুণ উদ্যোক্তা সৃস্টিতে আগামী ২২ ডিসেম্বর শনিবার দিনব্যাপী এক সেমিনারের আয়োজন করেছে ইউডা। সেমিনারে ইউডার ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের সকল শিক্ষার্থী সহ প্রায় ৪৫ জন মেধাবী তরুণ উদ্যোক্তরা অংশ নিবে।

For Advertisement

01672575878

দৈনিক নতুন দিগন্ত প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত:

error: Content is protected !!