1. ssexpressit@gmail.com : admin :
  2. dailynatundiganto@gmail.com : Homayon Kabir : Homayon Kabir
সর্বশেষ :
আশুলিয়ায় রাতের আধাঁরে জমি দখলে বাধা দিলে পুলিশ পরিবারের উপর হামলা নয় দেশকে হারিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট ক্লাব ওমানের জয় ;জমকালো আয়োজনে উদযাপন ১৪ বছর ধরে বঙ্গবন্ধু পরিবারের নামে কুরবানী দেন কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা কাজী ছরোয়ার হোসেন। বৃদ্ধ আব্দুল আলিম নিজ বাড়িতে ফিরে যেতে চান সাঁকো থেকে পরে নাসিরনগরে আপন ভাই-বোনের মৃত্যু আখাউড়ায় ভিপি নূরের বিরুদ্ধে আইনমন্ত্রীকে কটুক্তির প্রতিবাদে ঝাড়ু মিছিল রাষ্ট্রদূতের সাথে চট্টগ্রাম সমিতি ওমানের সৌজন্যে সাক্ষাৎ গোয়ালন্দ পৌরসভার ড্রেন নির্মানে অনিয়ম। বাংলা সাহিত্যে বিশেষ অবদানে লিটারেচার স্বর্ণপদক এ্যাওয়ার্ড পেলেন কবি ও সংগঠক আমির বিন সুলতান ধ্বংসের রঙ্গমঞ্চ

বঙ্গবন্ধু এবং শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের এই ছবিটা মিথ্যে নয়

  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২১
  • ২০৭ বার পড়েছে

আসিফ আকবরের ফেসবুক থেকে হুবহু:বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের এই ছবিটা মিথ্যে নয়। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার হাসিমাখা ছবিটিও মিথ্যে নয়। দেশের মানুষকে বিভক্ত করার এজেন্ডায় লিপ্ত ষড়যন্ত্রকারীরা আপাতত আসলেই সফল। প্রথম পক্ষ মীরজাফরের বংশোদ্ভূত নতুন প্রজন্মের চাটুকার জগৎ শেঠ আর উঁমিচাদের বংশধর, প্রান দিচ্ছে দেশপ্রেমিক মোহনলাল আর মীরমদন।

স্বাধীন দেশের দুজন সর্বোচ্চ জনপ্রিয় নেতার হত্যাকারীরাই এখনকার আসল বেনিফিশিয়ারী। তাঁদের ত্যাগে সৃষ্ট সিংহাসন নিয়ে খেলছে তৃতীয় পক্ষ। আমরা সাময়িক সুবিধার জন্য শত্রুপক্ষের সাথে হাত মিলিয়ে ক্ষমতা কুক্ষিগত করার খেলায় লিপ্ত। নেতা নেতাই হয়, সাধারন জনগণ মহা প্রজ্ঞাবান হয়ে দুনিয়া উল্টে ফেলবে এমন সুযোগ নেই। সবাই কথা বলছে বলেছে এবং বলবে নিজের আমিত্বের জন্য। মুজিব জিয়া ছাড়া এই দেশের রাজনীতির গতি নেই, যেমন গতি নেই খালেদা হাসিনা ছাড়া। রাজনীতির খেলা প্রতিহিংসা ছাড়িয়ে প্রতিশোধের দিকে ধাবিত হচ্ছে। বাংলাদেশের রাজনৈতিক ভবিষ্যত এই দুই পরিবারের বাইরে যাওয়া অসম্ভব। অদম্য বাংলাদেশকে দাবিয়ে রাখতে দেশী বিদেশী বেনিয়ারা সফল হয়েছে। সন্দেহ অবিশ্বাসের বিদ্বেষ এখন ঘরে ঘরে। এদেশে এখন মানুষ নেই, আছে আওয়ামী লীগ বিএনপি আর জোটের নামে মহাজট।

হীনমন্যতা দূর করে ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করেই আমাদের মরতে হবে। নইলে স্বাধীনতার সমস্ত অর্জন মোহাম্মদী বেগ এর মত বিশ্বাসঘাতক চাকরবাকরদের হাতেই নিহত হবে নবাব সিরাজুদ্দৌলার মত। পারস্পারিক সম্মানবোধের দৃষ্টান্ত স্থাপন করার শেষ সময় চলে এসেছে। আমার ক্ষুদ্র জ্ঞানে এটুকুই বুঝি- বেশী দেরী হয়ে গেলে প্রতিশোধের হিংস্র খেলা শুরু হয়ে যাবে। এই অবিশ্বাসের খেলায় আমরা আঠারো কোটি বাংলাদেশী লাভবান হবোনা কখনোই। বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার সিদ্ধান্ত সরকারের ছানাপোনার কথায় হবেনা। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর বিচক্ষনতা আর উদারতা এবং বেগম জিয়ার উন্নত চিকিৎসা একই সূত্রে গাঁথা। সবসময়ের বেনিফিশিয়ারী তৃতীয় পক্ষের মুচকি হাসিতে যেন জাতি আর বেশী বিভক্তির দিকে না যায়- এটাই একমাত্র চাওয়া। মহান আল্লাহ বাংলাদেশের মঙ্গল করুন। দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীরা আল্লাহর দুনিয়ার আগুনেই নিক্ষিপ্ত হউক।

ভালবাসা অবিরাম…

সংবাদটি শেয়ার করুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও সংবাদ :